জ্যোতিষী বলল মেয়ে হবে, শুনেই স্ত্রীর পেটে অ্যাসিড ঢেলে দিল স্বামী

অলিম্পিকে যতই মানরক্ষা করুন মেয়েরা, যত বড় করেই ‘বেটি বাঁচাও’ স্লোগান তুলুক, এখনো মেয়ের জন্ম দেওয়াকে জন্মদাত্রী মায়ের ‘অপরাধ’ হিসেবেই দেখেন বহু বহু মানুষ। আর একবার তার প্রমাণ মিলল ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশে। এক্ষেত্রে জন্ম দেওয়াও হয়নি। শুধু জ্যোতিষী বলেছিলেন আবার কন্যাসন্তান আসছে। এই কথা শুনেই ক্রোধে অন্ধ অন্ধ্রপ্রদেশের নেল্লোরের এক ব্যক্তি। যথারীতি সমস্ত রাগ গিয়ে পড়ল স্ত্রী গিরিজার উপর। শুরু হয় মারধর। এক দিকে স্বামী, অন্য দিকে শাশুড়ি এবং ননদ। প্রতিদিন অত্যাচার চলতে থাকে। গিরিজার পেটে অ্যাসিড ঢেলে খুন করারও চেষ্টা করে শ্বশুরবাড়ির লোকেরা। জোর করে ভ্রূণ হত্যারও চেষ্টা করা হয়। গিরিজার পেটের ৩০ শতাংশ পুড়ে যায় অ্যাসিডে। গুরুতর জখম অবস্থায় Continue reading জ্যোতিষী বলল মেয়ে হবে, শুনেই স্ত্রীর পেটে অ্যাসিড ঢেলে দিল স্বামী

নিজেকে করে তুলুন একজন পজেটিভ মানুষ

  নেগিটভিটি বা নেতিবাচকতা একজন মানুষের জীবনে মারাত্মক সমস্যার জন্ম দিতে পারে। যে মানুষটি সব সময় তার চারপাশের ঘটনাগুলোকে নেগেটিভ চোখে দেখেন তিনি নিজে কখনো ভাল থাকতে পারেন না। কারণ জীবনে সুযোগ আসলেও তিনি তা গ্রহণ করেন না। মনের নেতিবাচকতা তাকে মানুষের উপর বিশ্বাস করতে দ্য না। আর জীবনে বিশ্বাস না থাকলে শ্বাস নেওয়াও কষ্টকর বোধ হয়। জীবনকে ইতিবাচক চোখে দেখেন যারা তারাই সফলতার স্পর্শ পান। আপনি যদি একজন নেগেটিভ মানুষ হয়ে থাকেন তাহলে নিজের মন মানসিকতা পরিবর্তনে সচেষ্ট হন আজই। নিজেকে একজন পজেটিভ মানুষে রূপান্তর করতে করুন এই কাজগুলো- কৃতজ্ঞ হন আপনি জীবন থেকে যা পেয়েছেন তার প্রতি কৃতজ্ঞ Continue reading নিজেকে করে তুলুন একজন পজেটিভ মানুষ

বোরিং নয়, হয়ে উঠুন ইন্টারেস্টিং মানুষ

বন্ধুদের আড্ডায় এমন অনেকেই থাকেন যারা সহজে মিশে যেতে পারেন না। কেন যেন বিব্রত হতে থাকেন অল্পতেই। তাদের সাথে কিছুক্ষণ কথা বলার পর আর কথা খুঁজে পাওয়া যায় না। তারাও অন্যদের সঙ্গ খুব একটা উপভোগ করেন না। কেমন জানি একা একা থাকতেই পছন্দ করেন তারা। এভাবে তারা হয়ে পড়েন বিচ্ছিন্ন, সবার ভাষায় বোরিং। নিজের মত থাকা্র এই ধরণটি হতে পারে আপনারও। সবার থেকে বিচ্ছিন্ন হতে থাকলে এক সময় বিষণ্ণতা ঘিরে ধরে আমাদের। বিশেষ করে প্রেমিক বা প্রমিকাও যদি বলে বসেন ‘তুমি বোরিং’ তখন কিন্তু আর মানা যায় না! বোরিং নয়, নিজেকে পরিণত করুন ইন্টারেস্টং মানুষে। মস্তিষ্ককে কাজে লাগান অলস মস্তিষ্ক Continue reading বোরিং নয়, হয়ে উঠুন ইন্টারেস্টিং মানুষ

৮ ধরণের নারী হতে সাবধান!

পৃথিবীতে মানুষ মাত্রই ভালো আর খারাপের মিশেল। পৃথিবীর সকল পুরুষ যেমন খারাপ না, তেমনই সকল পুরুষ ভালোও না। নারীদের ক্ষেত্রেও একই কথা প্রযোজ্য। যতই নারীদেরকে অবলা বা দুর্বল ভাবা হোক না কেন, একজন বিপদজনক স্বভাবের নারী যে কোন পুরুষের জীবন ধ্বংস করে দেয়ার জন্য যথেষ্ট। হ্যাঁ, শুনতে একটু কেমন কেমন লাগলেও কথা কিন্তু শতভাগ সত্যি। প্রেম করছেন কিংবা বিয়ে করার কথা ভাবছেন? তাহলে চটজলদি চোখ বুলিয়ে নিন এই তালিকায়। আর জেনে নিন প্রেম-ভালোবাসার ক্ষেত্রে কেমন নারীদের কাছ থেকে ১০০ হাত দূরত্ব বজায় রাখতে হবে। যে শুধু আপনার টাকা দেখে এটা সত্যি যে একান্ত পুরুষের কাছে আর্থিক নিরাপত্তা কমবেশি বেশিরভাগ নারীই Continue reading ৮ ধরণের নারী হতে সাবধান!

শাশুড়ি আমার বিরুদ্ধে কথা বলেন

মেহতাব খানমঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এডুকেশন অ্যান্ড কাউন্সেলিং সাইকোলজি বিভাগের অধ্যাপক মেহতাব খানম। তিনি আপনার মানসিক বিভিন্ন সমস্যার সম্ভাব্য সমাধান দেবেন। অল্প কথায় আপনার সমস্যা তুলে ধরুন।—বি. স. সমস্যা আমি বাবা-মায়ের একমাত্র মেয়ে। ২৩ বছর বছর বয়সে পারিবারিকভাবে আমার বিয়ে হয়। কিন্তু ছেলের মাদকাসক্তি ও শারীরিক অক্ষমতার জন্য নয় মাস পরেই  আমাদের বিচ্ছেদ হয়ে যায়। এরপর মাঝে চার বছর বিরতি। এই চার বছর আমি উচ্চশিক্ষা নিয়েছি। ২৮ বছর বয়সে আমি আবারও বিয়ের পিঁড়িতে বসি। এবারও পারিবারিকভাবে বিয়ের পর সব ঠিকঠাক চলছিল। আর দশজন স্বামীর মতো আমার স্বামীও আমাকে ভালোবাসতেন। শ্বশুরবাড়ি গিয়ে থাকা শুরু করি। আমার বাবারা উচ্চমধ্যবিত্ত। আর শ্বশুর নিম্নমধ্যবিত্ত। শাশুড়ি প্রায়ই Continue reading শাশুড়ি আমার বিরুদ্ধে কথা বলেন

বরের সঙ্গে বোনের প্রেম!

ব্যাপারটা একটা অদ্ভুত সংকটই বটে। রিমির বড় বোনের বিয়ে হয়েছে আজ প্রায় পাঁচ বছর হলো। তাঁর স্বামী আসিফ ব্যাংকের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা। সাবলীল ও স্বতঃস্ফূর্ত ব্যবহার আর দৃপ্ত ব্যক্তিত্বের জন্য বিয়ের পর থেকেই রিমিদের পরিবারের সবার কাছে আসিফ খুব প্রিয়। কিন্তু সংকটটা ঘটে তখনই, যখন রিমি টের পান আসিফ তাঁর প্রতি কেমন যেন বাড়তি মনোযোগ ও আগ্রহ দেখাচ্ছেন। এই বিশেষ মনোযোগটির মধ্যে যে একধরনের প্রেমময় হাতছানি রয়েছে, সেটা ২৫ বছর বয়সী রিমি খুব সহজেই বুঝতে পারেন। বেশ সুদর্শন ও প্রাঞ্জল আসিফের তাঁর প্রতি এমন আকর্ষণ রিমির যে খুব খারাপ লাগে, তাও না। তবে তাঁর মন এটা ভালোভাবেই বোঝে যে তাঁর প্রতি Continue reading বরের সঙ্গে বোনের প্রেম!

পৃথিবীতে যুদ্ধ নয়, শান্তি চাই

ইসলাম সব ধরনের অস্ত্রবাজি, সন্ত্রাসী বোমা হামলা, সামরিক আগ্রাসন, জুলুম-নির্যাতন, অনিষ্ট সাধন, দাঙ্গা-হাঙ্গামা ও নরহত্যার বিরোধী। নিরীহ মানুষ হত্যাকে ইসলাম কখনোই প্রশ্রয় দেয় না। তবে ইসলামে যেমন ন্যায়সংগত যুদ্ধের স্বীকৃতি রয়েছে, তেমনি আবশ্যক মতো শান্তিচুক্তি বা সন্ধির বিধানও রয়েছে। ইসলামের আবির্ভাবের আগে আরবে বিভিন্ন জনগোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষ ও রক্তক্ষয়ী যুদ্ধবিগ্রহ লেগে থাকত। ইসলামের আগমনে রক্তপাত ও হানাহানির অবসান ঘটে। সব রকম চরমপন্থা ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডই ইসলামপরিপন্থী। সন্ত্রাসী তৎপরতা ও আগ্রাসী হামলা প্রতিরোধে প্রয়োজনে সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করার নির্দেশ দিয়ে পবিত্র কোরআনে আল্লাহ তাআলা ঘোষণা করেছেন, ‘তোমরা তাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করতে থাকবে, যতক্ষণ ফিতনা দূরীভূত না হয়।’ (সূরা আল-বাকারা, আয়াত: ১৯৩) Continue reading পৃথিবীতে যুদ্ধ নয়, শান্তি চাই

ন্যায্য মজুরি শ্রমিকের অধিকার

শ্রমিককে কাজ সম্পাদন করামাত্রই তাঁর প্রাপ্য পারিশ্রমিক প্রদান করা মালিকের প্রধান দায়িত্ব। শ্রমিক-মজুরেরা নিজের ও পরিবারের যাবতীয় প্রয়োজন পূরণের জন্য কঠিন পরিশ্রম করে থাকেন। প্রাপ্য মজুরিই তাঁদের জীবিকার একমাত্র অবলম্বন। কিন্তু যুগ যুগ ধরে শ্রমিকেরা ন্যায্য প্রাপ্য মজুরি থেকে বঞ্চিত হয়েছেন। তাঁদের কাজের সময় কমানো ও ন্যায্য মজুরি প্রাপ্তির অধিকার নিয়ে সংগ্রাম করতে গিয়েই তাঁরা নিগৃহীত হন। শুরু হয় শক্তির দাপটে তাঁদের ওপর মালিকপক্ষের জুলুম-নির্যাতন। অথচ শ্রমিকেরাই হাড়ভাঙা খাটুনি খেটে মালিকের জন্য খাদ্য-বস্ত্র উৎপাদন করেন, বাসস্থান নির্মাণ করেন। এমতাবস্থায় শ্রমিকেরা যদি ন্যায্য মজুরি না পান বা প্রয়োজন অপেক্ষা কম পান বা নির্দিষ্ট সময়মতো প্রাপ্য অধিকার থেকে বঞ্চিত হন, তবে তাঁদের Continue reading ন্যায্য মজুরি শ্রমিকের অধিকার

আত্মহত্যার ভয়ংকর পরিণতি

ইসলামে আত্মহত্যা মহাপাপ ও অত্যন্ত ঘৃণ্য কাজ হওয়া সত্ত্বেও এমন অনেক লোক আছে, যারা জীবনযাপনের কঠিন দুঃখ-দুর্দশা ও ব্যর্থতার গ্লানি থেকে পরিত্রাণের জন্য অথবা জেদের বশবর্তী হয়ে বেছে নেয় আত্মহননের পথ। কিন্তু ধৈর্য ধারণ করে আল্লাহর ওপর ভরসা ও দৃঢ় আস্থা থাকলে কারও আত্মহত্যার মতো ক্লেশকর পথে পা বাড়াতে হয় না। আত্মহত্যা থেকে বিরত থাকতে আল্লাহ তাআলা বিশেষভাবে নির্দেশ দিয়েছেন এবং আত্মহত্যার পরিণামে কঠোর শাস্তির বর্ণনা দিয়ে পবিত্র কোরআনে ইরশাদ করেছেন, ‘তোমরা নিজেদের হত্যা কোরো না, নিশ্চয়ই আল্লাহ তোমাদের প্রতি পরম দয়ালু এবং যে কেউ সীমা লঙ্ঘন করে অন্যায়ভাবে তা (আত্মহত্যা) করবে, তাকে অগ্নিতে দগ্ধ করব; এটা আল্লাহর পক্ষে সহজ।’ Continue reading আত্মহত্যার ভয়ংকর পরিণতি