আলহামদুলিল্লাহ, ইনশাআল্লাহর মতো শব্দ কখন কোনটি বলবেন?

ব্যবহার মানব জীবনের এক গুরুত্বপূর্ণ ও অপরিহার্য উপাদান। ইসলামে সুন্দর ব্যবহারকে ইবাদত হিসেবে গণ্য করা হয়। তাই সবার সঙ্গে ভালো ব্যবহারের পাশাপাশি জীবনাচারের ক্ষেত্রে আদব-কায়দা ও শিষ্টাচার পরিপালন জরুরি। আমাদের প্রিয় নবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) আমাদের যেভাবে ইসলামের আদর্শ শিক্ষা দিয়ে গিয়েছেন। মানুষের সাথে চলা এবং কথা বলা শিখিয়ে গিয়েছেন তা সঠিকভাবে পালন করাই ইসলামের মুল শিক্ষা। ইসলামে শিষ্টাচারকে ঈমানের অংশ বলা হয়েছে। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য যে, ধীরে ধীরে শিষ্টাচারপূর্ণ আচরণ কমে যাচ্ছে। মানুষ ইসলামের শিক্ষা ও আদর্শ ভুলে যাওয়ার ফলে সমাজের অবস্থা দিন দিন পাল্টে যাচ্ছে। চলনে-বলনে অনেক নামাজী ও দ্বীনদার ব্যক্তিকেও ইসলামের পরিভাষার যথোপযুক্ত ব্যবহার সম্পর্কে উদাসীন Continue reading আলহামদুলিল্লাহ, ইনশাআল্লাহর মতো শব্দ কখন কোনটি বলবেন?

আদর্শ সন্তান গঠনে আপনার করণীয়

সন্তান আল্লাহর পক্ষ থেকে বিরাট নিয়ামত এবং আমানত। যার কারণে সন্তানকে সৎ, আদর্শবান ও উত্তম চরিত্রে চরিত্রবান করে গড়ে তোলার দায়িত্ব সর্ব প্রথম পিতা-মাতার উপর। তারা এই দায়িত্ব পালনে অবহেলা করলে বা আমানতের খেয়ানত করলে মহান আল্লাহর কাঠগড়ায় দাঁড়িয়ে বিচারের সম্মুখীন হতে হবে। আজকের যারা শিশু তারাই আগামী দিনের রাষ্ট্র পরিচালক, সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে দায়িত্বশীল এবং দেশের নাগরিক। সুতরাং তাদেরকে যথাযথভাবে গড়ে তোলার উপর নির্ভর করছে আমাদের ভবিষ্যৎ। তাই আদর্শ সন্তান গঠনে নিন্মোক্ত বিষয় সমূহ লক্ষ্য রাখা অত্যন্ত গুরুত্ব পূর্ণ: ১) আদর্শ সন্তানের জন্য পিতা-মাতার সৎ ও আদর্শবান হওয়া অপরিহার্য। ২) সন্তানদের জন্য আল্লাহর নিকট দুয়া করা। ৩) শিশুদেরকে ভুত-প্রেত, Continue reading আদর্শ সন্তান গঠনে আপনার করণীয়

স্ত্রীর উপার্জিত অর্থে স্বামীর অধিকারের বিষয়ে ইসলাম কি বলে?

স্ত্রীর উপার্জিত অর্থ তার অনুমতি ব্যতীত খরচ করা, কিংবা স্ত্রীকে না জানিয়ে মা-বাবা, ভাই-বোন থেকে শুরু করে কাউকে ওই টাকা দিয়ে সাহায্য করা ইসলাম অনুমোদন দেয় না। এটা জায়েজ নেই। এটা করলে স্ত্রীর অধিকার নষ্ট করা হবে এবং তার আমানতের খেয়ানত করা হবে। স্ত্রীর উপার্জিত টাকা থেকে পারিবারিক ঋণ পরিশোধ অথবা সংসার পরিচালনার জন্য খরচ করতে হলে অবশ্যই স্ত্রীর সঙ্গে পরামর্শ করতে হবে। তার অনুমতি হলেই কেবল এটাই সম্ভব হবে, অন্যথায়। কারণ, স্ত্রীর সম্পদের অধিকারী স্বামী নয়। তাই স্ত্রীকে না জানিয়ে তার খরচ করলে স্বামী গুনাহগার হবে। তবে হ্যাঁ, স্বামী তার উপার্জিত টাকা সংসারের চাহিদা মিটিয়ে নিজ পছন্দমতো খরচ করতে Continue reading স্ত্রীর উপার্জিত অর্থে স্বামীর অধিকারের বিষয়ে ইসলাম কি বলে?

কথা বলার ইসলামি রীতিনীতি

অন্যের সঙ্গে কথা বলার ক্ষেত্রে ইসলাম কিছু বিধিমালা প্রণয়ন করেছে। একজন মুসলিমকে সেই বিধিমালাগুলো মেনে চলা উচিত। কারণ মানুষ যা কিছু বলে এর জন্য তাকে জবাবদিহিতা করতে হবে। ভালো কথার জন্য সে পুরস্কৃত হবে এবং মন্দ কথার জন্য শাস্তি ভোগ করতে হবে। আল্লাহ বলেন, ‘(ক্ষদ্র) একটি শব্দও সে উচ্চারণ করে না, যা সংরক্ষণ করার জন্য একজন সদা সতর্ক প্রহরী তার পাশে নিয়োাজিত থাকে না।’ (সুরা ক্বাফ-১৮) তিরমিজি ও ইবনে মাজাহ শরিফে বর্ণিত একটি হাদিসে রাসুল (সা.) বলেছেন: ‘একজন ব্যক্তি এমন কোনো কথা বলতে পারে যা আল্লাহর কাছে পছন্দনীয় এবং সে এই বিষয়ে খুব একটা চিন্তা করে না। কিন্তু আল্লাহ তায়ালা Continue reading কথা বলার ইসলামি রীতিনীতি

ইসলামী জীবনে নামাজ

ইসলাম মানবতা, নিষ্ঠা ও একতার ধর্ম, পৃথিবীর সব আদর্শের মডেল, সৌন্দর্যের প্রতীক। সৌহার্দ্য-সম্প্রীতির বর্ণিল উষা। নামাজ হলো সে উষালোকের রশ্মি বা দ্যুতি। ইসলামের মূল রোকনের দ্বিতীয়টিই হলো নামাজ। এ নামাজকে যারা দুনিয়া রক্ষার হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছে যুগে যুগে তারাই সফলতা লাভ করেছে। আল্লাহ তাআলা বলেন, “হে নবী আপনার পরিবার-পরিজনকে নামাজের হুকুম করুন ও আপনি নামাজের ব্যাপারে যত্মবান হোন। আপনার নিকট আমি কোনো রিযিক চাই না; কেননা রিযিক তো আমিই আপনাকে দান করবো।”পৃথিবীর সব কিছু আল্লাহকে সিজদাহ করে। প্রশংসায় থাকে নতশির। পবিত্র কালামুল্লাহর সুরা রাআদ-এর ১৫নং আয়াতে বলা হয়েছে, “আল্লাহর প্রতি সিজদারত হয় আকাশম-লী ও পৃথিবীতে যা আছে ইচ্ছায় অথবা Continue reading ইসলামী জীবনে নামাজ

রাতে ঘুমাতে যাবার আগে যে দোয়া পাঠ করবেন

ঘুম যেন এক রহস্য দ্বীপ। আবছা আলো-আঁধারে ঢাকা। ‘ঘুম ঘোরে কে আসে মনোহর?’ আবার, ‘কখনো জাগরণে যায় বিভাবরী।’ এ শরীর যার, যে জগতে এর বাস, তার যেন তেমন ভূমিকাই নেই, বিস্মৃত সে এ জগৎ সম্বন্ধে। আমরা সবাই এমন অবস্থায় জীবনের এক-তৃতীয়াংশ সময় কাটাই। ঘুম অবশ্য জীবনের অপরিহার্য অংশ। সাত-আট ঘণ্টা ঘুমাতে হয় আমাদের প্রতিদিন। আমরা যখন ঘুমাই, তখন শরীরে অদ্ভুত সব ঘটনার ঘনঘটা ঘটে—আমরা কখনো অনেক দূরে চলে যাই স্বপ্নের ভুবনে কী আশ্চর্য সফলতার সঙ্গে শরীর তখন নিজের দেখভাল নিজেই করে! ঘুম হয় নানা স্তরে। আমরা নেমে আসি অনেক সময় গভীর ঘুমের স্তরে, হঠাৎ আমরা যখন জেগে উঠি, এ যেন Continue reading রাতে ঘুমাতে যাবার আগে যে দোয়া পাঠ করবেন

মিথ্যা মানুষ-কে সহজে জাহান্নামের পথে ধাবিত করে

আমরা অহরহ পত্র-পত্রিকায়, পথেঘাটে কিংবা যানবাহনে বিজ্ঞাপন দেখি, সহজ উপায়ে ইংরেজি শিক্ষা, সহজ উপায়ে ধনী হওয়াসহ নানাবিধ শর্টকাট পদ্ধতিতে সাফল্যের বাহারি নোট-নোটিশ। ওই শর্টকাট পথ ধরে কেউ কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছাতে পেরেছে কি-না তা নিয়ে সন্দেহ রয়েছে। তবে একটি বিষয় খুব সহজেই আপনাকে অন্যত্র পৌঁছে দেবে। কী সেই বিষয় ও কোন সে গন্তব্য! আমরা সবাই অহরহ সেই বিষয়টিতে লিপ্ত ও প্রতিনিয়ত ওই গন্তব্যের দিকে ধাবিত। মিথ্যা ও অসততা। সাধারণের বেলায় আমরা বলে থাকি, তিনি মিথ্যা কথা বলেছেন। আর অসাধারণদের বেলায় বলি, তিনি অসত্য বলেছেন কিংবা তার কথাটি সত্য নয়। কোনো অবাস্তব বিষয়কে বাস্তব করে বলা কিংবা ঘটেনি এমন বিষয়কে ঘটেছে বলে Continue reading মিথ্যা মানুষ-কে সহজে জাহান্নামের পথে ধাবিত করে

ঘুমানোর আগে মহানবী (সা.) যে ৪টি কাজ করতেন!

আমাদের প্রিয় নবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) যখনই ঘুমাতে যান তখনই ৪টি কাজ করতেন। মূলত ঘুমানোর আগে মহানবী (সা.) যে কাজ করতেন সেই সুন্নাতগুলি মুসলিম হিসেবে আমাদের প্রত্যেকেরই করা উচিত। মহানবী (সা.) ঘুমানোর আগে এই ৪টি কাজ করতেন- ১. ভালোভাবে বিছানা ঝেড়ে নিতেন। -(বুখারীঃ ৬৩২০) ২. ঘরের দরজা আল্লাহর নামে বন্ধ করতেন। -(বুখারীঃ ৫৬২৩) ৩. শয়নের সময় দু’আ পাঠ করতেন (যেমনঃ ‘আল্লাহুম্মা বিসমিকা আ’মুতু ওয়া আহইয়া’)। -(বুখারীঃ ৬৩১৪) ৪. ডান কাৎ হয়ে শয়ন করতেন। -(বুখারীঃ ৬৩১৫) এছাড়া মহানবী (সা.) ঘুমানোর আগে ৫টি কাজ করতে বলেছেন- ১. সাধারণত সতর খুলা অবস্হায় না শোয়া। -(তিরমিযীঃ ২৭৬৯) ২. বিনা কারণে উপুড় হয়ে শয়ন করতে Continue reading ঘুমানোর আগে মহানবী (সা.) যে ৪টি কাজ করতেন!

জেনে নিন, অন্তরের ১০টি রোগ, যা ইসলাম থেকে দূরে সরিয়ে দিচ্ছে !!

আপনার অন্তর যদি পাথর হয়ে যায়, তাহলে আপনার মধ্যে থেকে রহমত দূরে সরে যায়। সেই সাথে আপনার মধ্যে থেকে দিনে দিনে দ্বীনের আলো কমতে থাকে। কমতে কমতে এমন এক পর্যায়ে আপনাকে নিয়ে যায়, যেখানে কাফের আর আপনার মধ্যে তেমন কোন পার্থক্য পরিলক্ষিত হয় না। তাই অন্তরের ১০টি রোগ সম্পর্কে এখনই জেনে নিন। সেই সাথে এগুলো জানার পরে জীবনে শিক্ষা লাভ করুন এবং খেয়াল রাখবেন এগুলো যেন আপনার শরীরে কোন ভাবেই বাসা বাধতে না পারে। অন্তরের রোগসমূহ ১ – আল্লাহর অস্তিত্বে বিশ্বাস করেন কিন্তু তাঁর আদেশ পালন করেন না। ২ – মুখে বলেন মুহাম্মদ (সাঃ) কে ভালবাসি কিন্তু তাঁর সুন্নতের অনুসরণ Continue reading জেনে নিন, অন্তরের ১০টি রোগ, যা ইসলাম থেকে দূরে সরিয়ে দিচ্ছে !!

পবিত্র জিলহজ মাসের প্রথম দশকে যে দায়িত্ব ও কর্তব্য

হজ মানুষ দেখানো কোন ইবাদত না। হজ পালন মুসলমানের মধ্যে ঐক্যবদ্ধ ও আল্লাহর ভয়ের চেতনাকে জাগ্রত করে। ভ্রান্ত ধারণা কিংবা ঘৃণা-বিদ্বেষমূলক কাজ থেকে হেফাজত এবং ইবাদাত বন্দেগিতে নিজেদের আত্মনিয়োগ করাই হজের দশকের দাবি। যা বিশ্বের সব মুসলমানকে এক ও ঐক্যবদ্ধভাবে ইবাদত বন্দেগিতে শামিল করে। এ দশকের করণীয় ও বর্জনীয়/দায়িত্ব ও কর্তব্য তুলে ধরা হলো- মানুষ সৃষ্টির সেরা জীব, আশরাফুল মাখলুকাত। ইসলাম এ সম্মান মানুষকে দিয়েছে। তা রক্ষা করার দায়িত্ব মানুষের। আল্লাহ রাব্বুল আলামিন মানুষকে ভালো-মন্দ, পাপ-পুণ্য, ন্যায়-অন্যায়, হিংসা-বিদ্বেষ অনুধাবন তথা ইচ্ছা শক্তির ক্ষমতা দান করেছেন। মানুষ তার নিজের সম্মান কিভাবে রক্ষা করবে সে সব করণীয় ও বর্জনীয় বিষয়াদির বিস্তারিত বিবরণ Continue reading পবিত্র জিলহজ মাসের প্রথম দশকে যে দায়িত্ব ও কর্তব্য